কাউন্সিলর পদে জনপ্রিয়তার শীর্ষে আব্দুস সালাম আহম্মেদ আব্বাস 

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন ২৫মে, ২০২৩ইং তারিখে। প্রতিক বরাদ্দ ৯ই মে, ২০২৩ইং তারিখ। নির্বাচনের আগেই গাসিক নির্বাচন নিয়ে সবাই মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন। কেউ কেউ মেয়র পদের জন্য আবার কেউ কাউন্সিলর নির্বাচন নিয়ে। সবার মতো পিছিয়ে নেই গাজীপুর ১নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর পদ প্রার্থীরাও। জানা গেছে এবারের ১নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদ প্রার্থী হিসেবে লড়বেন মোট ৪ জন। তার মধ্যে আছেন বর্তমান কাউন্সিলর মোঃ ওসমান গনি লিটন, সাবেক কাউন্সিলর আব্দুস সালাম আহমেদ আব্বাস, আব্দুর রহিম খানসহ আরও নতুন এক মুখ। এদের মধ্যে এবারের হাড্ডা হাড্ডি লড়াই হবে ওসমান গনি লিটন ও আব্দুস সালাম আহমেদ আব্বাসের মধ্যে কারণ একজন বর্তমান কাউন্সিলর আরেকজন সাবেক সফল কাউন্সিলর। অত্র এলাকা ঘুরে ভোটারদের তথ্য মতে দুই কাউন্সিলরের মধ্যে বর্তমান শীর্ষে আছেন আব্বাস আহম্মেদ। ভোটাররা আরও জানান, আব্বাস আহম্মেদ সর্বশেষ ২০১৮ সালে নির্বাচনে অংশ নিয়ে ভোটের মাধ্যমে নির্বাচিত হলেও এক অদৃশ্য শক্তির মাধ্যমে তাকে পরাজিত করেছেন। প্রতিষ্ঠাতা এই কাউন্সিলর আব্বাস আহম্মেদ এলাকায় গরিবের বন্ধু, যুবকদের আইডল ও জনগণের কাউন্সিলর নামে ব্যপক পরিচিত লাভ করেন। এছাড়াও তিনি একজন ক্রীড়া বান্ধব কাউন্সিলর হিসেবেও পরিচিত। বিকেল হলেই সবসময় দেখা যেতো এলাকার কোমলমতি শিশু, যুবকদের নিয়ে ক্রিকেট ও ফুটবল মাঠে যার কারণেও প্রশংসায় ভাসছে অভিভাবকদের কাছে। এলাকার যুবসমাজ মাদক সেবন, মাদক বিক্রি, সন্ত্রাস, ছিনতাই কাজে না জরিয়ে তার এই শারীরিক খেলাধুলায় সবসময়ই নিজেদের যুক্ত রাখতেন।
রিদয় নামের এক নতুন ভোটার বলেন, আব্বাস কাকা আমাদের যুবকদের আইডল ও যুব সমাজের সুস্থ রাখার বটগাছের মতো। বটগাছ যত বড় ততই ছায়া দেয় ঠিক আব্বাস কাকা গত কাউন্সিলরের আমল হতে এখন পর্যন্ত আমাদের ছায়া দিচ্ছেন। আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি এবারের নতুন ভোট আমারা সবাই যুবসমাজ আব্বাস কাকাকে দিবো।
এদিকে অত্র এলাকার বিভিন্ন সামাজিক প্রতিষ্ঠান জানান, আমরা অত্র এলাকায় দীর্ঘ বছর কাজ করে যাচ্ছি আব্বাস ভাইয়ের কাছে গিয়ে কখনো খালি হাতে ফিরে আসেনি, আব্বাসের একটা সবচেয়ে বড় গুন আমাদের কাছে ভালো লাগে আব্বাস সবাইকে বুকে নিয়ে কথা বলেন, আব্বাস সবার সাথে যে আন্তরিকতার সাথে কথা বলে তা অন্যকেউ পারবে বলে মনে হয়না। তার বিরুদ্ধে এলাকায় কোন অভিযোগ নেই, নেই কোন চাঁদাবাজি, সন্ত্রাসী, হামলা ও হুমকি, মামলার কোন অভিযোগ। তিনি লোক হিসেবে যথেষ্ট দায়িত্ববান এবং সৎ আমরা এমন একজন জনপ্রতিনিধিকে সমর্থন করি।
এবারের নির্বাচনী বিষয়ে কাউন্সিলর পদ প্রার্থী আব্দুস সালাম আহম্মেদ আব্বাসের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি কেমন ধরনের মানুষ তা অত্র এলাকার মানুষ জানেন এবং দেখেছেন। নির্বাচন সাধারন মানুষের এমন একটি পবিত্র আমানত যা সবাই রক্ষা করতে পারেনা অনেকে আছেন নির্বাচনের আগে অনেক রকমের লোভনীয় ও মিথ্যা প্রতি সুতি দিয়ে জনগণের সাথে প্রতারণা করেন। আমার এবারে বিশ্বাস জনগণের এগুলো প্রত্যাখ্যান করে আমার পক্ষে থেকে তাদের জবাব দিবেন। আমি এলাকার সর্বস্তরের ভোটারদের বলবো জনতার অধিকার আদায়ে আপনারা আমার সাথে থেকে সমর্থন দিবেন এবং জনগণের পক্ষে কাজ করতে আপনারা সবাই আমার পক্ষে থাকবেন। ইনশাআল্লাহ আমি আব্বাস জনগণের অধিকার আদায়ে ২৪ ঘন্টা সেবা দিয়ে যাবো। আমি মিথ্যা প্রতি সুতি দেইনা কারণ আপনারা জানেন আমি গত ২০১৮ ইং সাল থেকে আপনাদের ছেড়ে যাইনি আমি নির্বাচনী মাঠ ছেড়ে পালিয়ে যাইনি, কাউন্সিলর না হয়েও আপনাদের সেবায় নিয়োজিত ছিলাম, একটা মানুষ বলতে পারবেনা আমি কোন খারাপ কাজ বা কারো কোন ক্ষতি করেছি। তাই আমার বিশ্বাস এবার সাধারণ জণগণ এর মূল্যায়ন করবেন। সবার কাছে আমি দোয়া ও সমর্থন চাই।
যুক্ত হোন আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে এখানে ক্লিক করুন। এবং আমাদের সাথে যুক্ত থাকুন ফেইজবুক পেইজে এখানে ক্লিক করে।

Check Also

ই-অরেঞ্জের সাবেক চীফ অপারেটিং অফিসার রিমান্ডে

ই-অরেঞ্জের সাবেক চীফ অপারেটিং অফিসার রিমান্ডে

শাহারিয়ার ইসলাম :: আজ রবিবার ঢাকা অ্যাডিশনাল চীফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিষ্ট্রেট আবুবক্কর ছিদ্দিকের আদালত শুনানি শেষে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *