বাল্যবিয়ে

কাজীরহাটে ভুয়া জন্ম সনদের মাধ্যমে পুলিশ সদস্য রাসেলের বিয়ে

ভুয়া জন্ম সনদের মাধ্যমে পুলিশ সদস্যর সাথে ইউপি সদস্যর মেয়ের বিয়ে। বরিশাল জেলার মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলার কাজীরহাট থানার ৬ নং ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মো: রিয়াজ খান তার মেয়েকে একই ইউনিয়নের বাসীন্দা পুলিশ সদস্য মো: রাসেলের সাথে গত বছর একটি জাল জন্ম সনদ তৈরী করে বিবাহ দেন।

জাল সনদে জন্ম তারিখ ২০০২ সালের ১০ মার্চ দেখানো হলেও প্রকৃত পক্ষে রিয়াজ খানের মেয়ের জন্ম তারিখ ২০০৪ সালে। ২০১৪ সালে কাজীরহাট থানাধীন পূর্বচিলমারী রেজি: বে: প্রা: বিদ্যালয় থেকে প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা অংশ নেন। সেই তথ্যা মতে ওই শিক্ষার্থীর জন্ম সাল অনুযায়ী বয়স ছিল ১৬ বছর ৪ মাস ৮ দিন। যা বাল্যবিবাহ অপরাধের মধ্যে পরে।

স্থানীয়রা বলছেন, পুলিশ সদস্য রাসেল এবং ইউপি সদস্য শশুর রিয়াজ খান যৌথভাবে ওই জাল জন্ম সনদ তৈরী করে বাল্যবিবাহের কাজ সম্পন্ন করেন। স্থানীয়রা আরো বলেন, বাল্যবিবাহের সময় থানা পুলিশ এবং উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে বিষয়টি অবগত করা হলেও রহস্যজনক কারণে এড়িয়ে যান কর্তৃপক্ষ।

পুলিশ সদস্য মো: রাসেল বলেন, পারিবারিকভাবেই বিবাহ হয়েছে। তবে বাল্যবিবাহের বিষয়টি এড়িয়ে যান তিনি। অন্য দিকে মেয়ের বাবা বলেন, মেয়ের একাডেমিক সার্টিফিকেট এর জন্ম তারিখ সঠিক না। যে জন্ম সনদ এর মাধ্যমে বিবাহ দেওয়া হয়েছে সেটাই সঠিক।

সময়ের বার্তার কাছে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী যাছাই বাচাই করে দেখা যায় বিবাহের সময়ে দাখিলকৃত জন্ম সনদটি একটি জাল সনদ। মূলত মেয়েকে বাল্য বিবাহ দিতেই ওই জাল সনদ তৈরী করা হয়েছে।

Check Also

ঈদে নৌযাত্রায় যাত্রীদের ঝামেলার শঙ্কা

ঢাকা-বরিশাল নৌরুটের বিলাসবহুল লঞ্চের আগাম টিকিট বিক্রি শেষ পর্যায়ে হলেও যাত্রীদের কাছ থেকে আশানুরূপ সাড়া …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *