ছাত্রলীগের বিতর্কিত নেতা মুনীমের বিরুদ্ধে তদন্ত কমিটি

শিক্ষকতা ফাঁকি দিয়ে রাজনীতিতে সরব ছাত্রলীগ নেতা মুনীম!

শিক্ষকতা ফাঁকি দিয়ে রাজনীতিতে সরব ছাত্রলীগ নেতা মুনীম!> এম. লোকমান হোসাঈন ॥ কাগজে কলমে স্কুল শিক্ষক! তবে স্কুলে কবে নাগাদ ক্লাস নিয়েছেন শিক্ষার্থীরা জানে না। স্কুলে না গিয়ে বছরের পর বছর অসুস্থতা দেখিয়ে পার করে দিচ্ছেন ছাত্রলীগ নেতা আতিক উল্লাহ মুনীম। সরকারী নিয়ম অনুযায়ী সরকারের কোন কর্মচারী-কর্মকর্তা পদে যোগদান করতে হলে বা যোগদানের পর থেকে রাজনৈতির কোন পদ পদবীর সাথে যুক্ত থাকতে পারবেন না।

এমন নিয়মের তোয়াক্তা করছেন না তিনি। বর্তমানে তিনি বরিশাল জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতির পদে বহল তবিয়াতে রয়েছেন। কাগজ-কলমে নিজেকে অসুস্থ দেখানো হলেও বরিশাল নগরীর ক্ষমতাসীন দলের প্রায় সকল প্রোগ্রামে প্রকাশ্যে দেখা মিলছে রাজনৈতিক এ নেতার। জানা যায়, মুনীম বরিশাল সিটি কর্পোশনের মেয়র ও বরিশাল মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ‘র অনুসারী।

ছাত্রলীগ নেতা ও শিক্ষক আতিক উল্লাহ মুনীম ২০১৭ সালের ১৭ এপ্রিল থেকে বানারীপাড়া কচুয়া রাড়ীপাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষক হিসেবে কর্মরত আছেন। যার প্রামাণপত্র সময়ের বার্তা’র কাছে সংরক্ষিত। মুনীম যোগদানের পর থেকে নিয়মিত স্কুলে না গিয়ে মেডিকেল রিপোর্ট প্রদান করে চালিয়ে আসছেন শিক্ষাকতা পেশা।

এছাড়া মুনীমের বিরুদ্ধে গুঞ্জন আছে তিনি বরিশাল সিটি কর্পোরেশনেও চাকরী করছেন। তবে এ বিষয় যথাযথ কোন প্রামাণ পাওয়া যায়নি। আতিক উল্লাহ মুনীমের অসুস্থতার কথা শুনে বরিশাল মহানগর আওয়ামীলীগের একজন প্রভাশালী নেতা সময়ের বার্তাকে বলেন, ‘আতিক উল্লাহ মুনীম অসুস্থ নয়। তিনি জেলা ছাত্রলীগের সহসভাপতি পদে আছেন, দলের সকল প্রোগ্রামে অংশ নিচ্ছেন।’ তবে মুনীম শিক্ষকতা করছেন কি-না সে বিষয় তার জানা নেই।

তিনি জানান, কেউ শিক্ষকতা বা সরকারী চাকরী করলে সেটার প্রতি সম্মান করা উচিত এবং যথাযথ সরকারী নিয়মকানুন মেনে চলা উচিত। অন্যথ্যায় সরকারের ভাবমূর্তি নষ্ট হবে। বানারীপাড়া কচুয়া রাড়ীপাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক মো: আতিক উল্লাহ মুনীমের বিষয়ে অবগত নন বরিশাল জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মোঃ আবদুল লতিফ মজুমদার।

শিক্ষা অফিসার মোঃ আবদুল লতিফ সময়ের বার্তাকে আরো বলেন, বিষয়টি তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। বানারীপাড়া উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মো: রফিকুল ইসলাম তালুকদার সময়ের বার্তাকে বলেন, ‘কচুয়া রাড়ীপাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক মুনীম ডাকযোগে একটি মেডিকেল রিপোর্ট পাঠিয়েছেন।

‘ এছাড়া ২০২১ সালের ৪  এপ্রিল বানারীপাড়া উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার পদে যোগাদানের পর থেকে, শিক্ষক মো: আতিক উল্লাহ মুনীমের বেতন-ভাতা বন্ধ রাখা হয়েছে। তিনি আরো বলেন, ‘শিক্ষক মুনীমের বিষয়টি সংশ্লিষ্ট কর্র্তৃপক্ষকে অবগতি করা হয়েছে।

’ বানারীপাড়া কচুয়া রাড়ীপাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো: জাহাঙ্গীর হোসেন সময়ের বার্তাকে বলেন, ‘শিক্ষক আতিক উল্লাহ মুনীম অসুস্থ আছেন এইমর্ম্মে আমি অবগত রয়েছি।

’ তবে এর বেশী কিছু বলতে নারাজ এ প্রধান শিক্ষক। এবিষয় শিক্ষক আতিক উল্লাহ মুনীমের বক্তব্য জানার জন্য মুঠোফোনে কল করা হলে ফোন রিসিভ করেননি তিনি। পরবর্তীতে মুঠোফোনে ক্ষুদে বার্তা পাঠানো হলেও তার কোন জবাব পাওয়া যায়নি।

যুক্ত হোন আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে এখানে ক্লিক করুন এবং আমাদের সাথে যুক্ত থাকুন ফেইজবুক পেইজে এখানে ক্লিক করে।

Check Also

পলাশপুরে স্ত্রীকে নিঃস্ব করে বিদেশে স্বামী!

পলাশপুরে স্ত্রীকে নিঃস্ব করে বিদেশে স্বামী!

পলাশপুরে স্ত্রীকে নিঃস্ব করে বিদেশে স্বামী! ।। এম. লোকমান হোসাঈন ॥ স্ত্রীর টাকায় ঘর নির্মাণ ও …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *