সমবায় ব্যাংকের ত্রিশ কোটি টাকার সম্পদ বেদখল
সমবায় ব্যাংকের ত্রিশ কোটি টাকার সম্পদ বেদখল

সমবায় ব্যাংকের ত্রিশ কোটি টাকার সম্পদ বেদখল

সমবায় ব্যাংকের ত্রিশ কোটি টাকার সম্পদ বেদখল ॥  স্টাফ রিপোর্টার ॥ বরিশাল সমবায় ব্যাংকের জমি দখল করে গড়ে তোলা হয়েছে একটি রেষ্টুরেন্ট।জমি সমবায় অধিদপ্তরের নিয়ন্ত্রনাধীন বরিশাল সমবায় ব্যাংকের। ৩২ শতাংশ জমির আংশিক দখল করে তিন তলা ভবন নির্মান করে নাজেমস বিরিয়ানী নামক রেস্তোঁরার মালিকের কাছে অর্ধকোটি টাকা জামানতে মাসিক ৪৫ হাজার টাকায় ভাড়া দেয়া হয়েছে। সমবায় অধিদপ্তরের নাকের ডগায় দখল হলেও তারা চিঠি চালাচালীতে ব্যস্ত।

এখন পর্যন্ত নেয়া হয়নি কোন ব্যবস্থা। সরেজমিনে দেখা গেছে,সমবায় ব্যাংক বরিশাল এর ৩২ শতাংশ জমি রয়েছে। রয়েছে একটি দ্বিতল ভবন।বর্তমানে সমবায় ব্যাংকের জমিতে নুতন একটি তিনতলা ভবন নির্মান হয়েছে। নুতন ভবনটি ৪৫ হাজার টাকা মাসিক ভাড়া ও অর্ধ কোটি টাকা এ্যাডভ্যান্স দিয়ে নাজেমস নামে একটি রেস্তোঁরা মালিককে ভাড়া দেয়া হয়েছে। ব্যাংকের পুরানো দ্বিতল ভবনকে বানানো হয়েছে

নাজেমসের রান্নার ঘর। সমবায় অধিদপ্তর বরিশাল বিভাগীয় ও জেলা কার্যালয় ও উপজেলা সমবায় বরিশাল অফিস অবগত থাকলেও এখন পর্যন্ত দৃশ্যমান কোন ব্যবস্থা গ্রহন না করায় প্রশ্ন তুলেছেন সমবায়ীরা। দখলে সমবায় কর্মকর্তারা জড়িত: বরিশাল সমবায় ব্যাংকের কোন বৈধ কমিটি নেই।

ব্যাংকটির জমি ও ভবন দখলে সমবায় অধিদপ্তরের বরিশাল বিভাগীয় অফিসের উপ নিবন্ধক (বিচার) মোঃ রবিউল ইসলাম,বরিশাল জেলা সমবায় অফিসার প্রশান্ত কুমার ব্যানার্জী,উপ-সহকারী নিবন্ধক মোঃ আমিনুল ইসলামের যোগসাজসে এ জমিতে ভবন নির্মান করা হয়।সুত্র জানায় দখলে নিরব সহযোগীতা করায় এ তিনজন কর্মকর্তা পেয়েছেন প্রায় পাচঁ লাখ টাকা।

সমবায় ব্যাংকের ত্রিশ কোটি টাকার সম্পদ বেদখল

পড়ুনঃ

অভিযোগ অস্বিকার করে জেলা সমবায় অফিসার প্রশান্ত কুমার ব্যানার্জী বলেন,ইতিমধ্য সমবায় ব্যাংক বরিশালের অবস্থা সম্পর্কে বরিশাল সদর উপজেলা সমবায় অফিসার লতিফা আকতার একটি প্রতিবেদন দিয়েছে।প্রতিবেদনটি শীর্ষ কর্মকর্তাদের নিকট পাঠানো হবে। সমবায় জেলা কার্যালয় সুত্র জানিয়েছে, বর্তমানে সমবায় ব্যাংক বরিশালের কোন কমিটি নেই।সমবায় ব্যাংকের জমিতে নতুন ভবন নির্মানে সমবায় অধিদপ্তরের কোন অনুমোদন নেই।

এ ছাড়া সমবায় ব্যাংকের জমিতে নতুন ভবনে রেস্তোঁরা ভাড়ার বিষয় সমবায় অধিদপ্তর এর কোন অনুমোদন নেই। এ দিকে বেদখল হওয়া সমবায় ব্যাংক বরিশালের বত্রিশ শতাংশ জমি ও ভবন উদ্ধারে কোন দৃশ্যমান ব্যবস্থা নেয়নি বরিশাল বিভাগীয় ,জেলা ও উপজেলা সমবায় অফিস।

এ ব্যাপারে নাজেমস বিরিয়ানীর মালিক রেজা জানান,কমিটি থেকে আমি মাসিক ভাড়ায় নিয়ে রেষ্টুরেন্ট করেছি। এ ব্যাপারে বরিশাল সমবায় বিভাগীয় অফিসের যুগ্ন নিবন্ধক মুহাম্মদ আবদুল্লা আল মামুন বলেন,জেলা সমবায় অফিসারকে আহবায়ক করে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে।কমিটির প্রতিবেদন হাতে পেলে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এ ব্যাপারে সমবায় অধিদপ্তরের ব্যাংক বিষয়ে দ্বায়িত্বে থাকা যুগ্ন নিবন্ধক রাশিদা মুসতারীন বলেন,আমরা সমবায় অধিদপ্তর থেকে বরিশাল সমবায় ব্যাংকের বর্তমান অবস্খা সম্পর্কে একটি প্রতিবেদন পেয়েছি।প্রতিবেদন হাতে পেলে প্রকিবেদন অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহন করবো॥

যুক্ত হোন আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে এখানে ক্লিক করুন। এবং আমাদের সাথে যুক্ত থাকুন ফেইজবুক পেইজে এখানে ক্লিক করে।

Check Also

তীব্র গরমে ববিতে ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত অনলাইন ক্লাস

তীব্র দাবদাহে স্বাস্থ্যঝুঁকি এড়াতে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় (ববি) শিক্ষার্থীদের সব ক্লাস আগামী ২২ এপ্রিল থেকে ৩০ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *