কাজীপাড়ায় বাবাকে ফাঁসাতে প্রতারণা মামলা!

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বাবাকে ফাঁসাতে বাবার বিরুদ্ধে প্রতারণা মামলা। অভিযোগের তীর ছেলের বিরুদ্ধে। বাবা শাহজাদা খুররমের দাবী তার ছেলে কামরুজ্জামান ঢাকার একটি আদালতে তার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দায়ের করেন। একই অভিযোগ কামরুজ্জামানের বড় বোনেরও। যদিও মামলায় বাদী দেখানো হয়েছে মাহাবুব আলম নামক এক ব্যক্তিকে। মামলার নথিতে বাদীর দেওয়া তথ্য মতে অনুসন্ধান করে নাম এবং ঠিকানার কোন অস্তিত্ব পাওয়া যায়নি। বাবার দাবী তার ছেলেই মাহাবুব আলম নামক একজনকে বাদী সাজিয়ে তার বিরুদ্ধে একটি মিথ্যা মামলা দায়ের করেছেন।

মামলার নথি ও আদালত সূত্রে প্রাপ্ত তথ্যর অনুসন্ধান করে আরো দেখা যায়, বরিশাল নগরীর ২২ নং ওয়ার্ড কাজীপাড়া ঘরনী সিএন্ডবি রোড এলাকার বাসীন্দা এ্যাড. শাহাজাদা খুররম, তার স্ত্রী সহ ৩ জনকে আসামী করে মামলা করা হয়েছে, ঢাকার একটি আদালতে। মামলার নথিতে উল্লেখ করা হয়েছে, ১ নং বিবাদী ও বাদীর র্দীঘদিনের পরিচিত এবং ঘনিষ্ঠতার সুবাদে ২০১৯ সালের ১৪ই জুন বাদীর বর্তমান ঠিকানায় উপস্থিত হয়ে ৩৮ (আটত্রিশ) লক্ষ টাকা ঋণপত্র দলিল সম্পাদন করে ধার হিসাবে গ্রহণ করেন।

বাদীর বর্তমান ঠিকানা দেখানো হয়েছে, ঢাকার রমনা থানাধীন ৪২ নিউ ইস্কাটন ৪র্থ তলা (এ-৪)। ১নং বিবাদী এ্যাড. শাহজাদা খুররমসহ যাদের নামে মামলা করা হয়েছে তারা, ২০১৯ সাল তো দূরের কথা বিগত ৮ বছর হয়েছে কেউই ঢাকা যাননি। এছাড়া মামলায় বাদীর পরিচয়পত্র উল্লেখিত ঠিকানা এবং পরিচয় পত্রটিও একটি ভুয়া জাতীয় পরিচয়পত্র। মাহবুব আলম নামে একটি ভুয়া জাতীয় পরিচয়পত্র তৈরী করে আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন। মাহবুব আলমের দেওয়া মতে ঠিকানা এবং জাতীয় পরিচয় পত্রর ঠিকানা মতে বাদীর কোন অস্তিত্বই নেই।

ঢাকা বিজ্ঞ চীফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে দায়েরকৃত মামলায় বাদীর জাতীয় পরিচয় পত্রের ফটোকপি, হাওলাদ বা ঋণ পত্র দলিলের ফটোকপি, লিগ্যাল নোটিশের ফটোকপি ও ডাক রশিদের ফটোকপি যাচাই-বাছাই করে দেখা যায় একটি চক্র আদালতে ভুয়া কাগজপত্র তৈরী করে টাকা আত্মসাতের মামলা দায়ের করেন। বিবাদীর দাবী তাদেরকে হয়রানি করার জন্য তার ছেলে শাহাজাদা এইচ এম কামরুজ্জামান এবং কামরুজ্জামানের শ্যালক পুলিশ অফিসার মুজাহিদুল ইসলাম যোগসাজে ঢাকার একটি আদালতে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

১নং বিবাদী আরো বলেন, তার সম্পত্তি থেকে তাকেসহ তার মেয়ে এবং স্ত্রীকে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেন ছেলে কামরুজ্জামান। এসময় কামরুজ্জামান ও কামরুজ্জামানের স্ত্রী জানায় তার ভাই পুলিশ অফিসার মুজাহিদুলকে দিয়ে, হত্যাসহ দেশের বিভিন্ন থানা এবং আদালতে মামলা দিয়ে হয়রানি করার হুমকি দেন। এবিষয় ওই পুলিশ অফিসারের বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

বাবা শাহাজাদা খুররমকে কয়েক মাস পূর্বে বাড়ি থেকে বের করে দেন ছেলে কামরুজ্জামান ও পূত্রবধূ। বর্তমানে ভাড়া বাসা নিয়ে বসবাস করছেন,বাবা শাহাজাদা খুররম। বাবা ন্যায় বিচারে স্বার্থে প্রশাসনের সহযোগিতার পাশাপাশী তার বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মামলাটি সুষ্ঠভাবে তদন্ত করে আসল অপরাধীর বিরুদ্ধে শাস্তির দাবী করছেন এই ভুক্তভোগী।

যুক্ত হোন আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে এখানে ক্লিক করুন এবং আমাদের সাথে যুক্ত থাকুন ফেইজবুক পেইজে এখানে ক্লিক করে। 

Check Also

বরিশাল মহানগর এনডিবি‘র সভাপতি ফুয়াদ সম্পাদক ফয়সাল

মোঃ ফরহাদ হোসেন ফুয়াদকে সভাপতি ও মোঃ ফয়সাল আহমেদকে সাধারণ সম্পাদক করে ১৪ সদস্য বিশিষ্ট …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *